মেনু নির্বাচন করুন

কৃষিতে পাবনা

কৃষিতে সমৃদ্ধ পাবনা জেলা

অবিভক্ত ভারত উপমহাদেশের ঐতিহ্যবাহী প্রদেশ বঙ্গদেশের একটি জেলার নাম পাবনা। পাবনা জেলার পূর্বে যমুনা নদী, দক্ষিণে পদ্মা।

এ অঞ্চলের জমি গঙ্গায় প্লাবিত পলিবাহিত সমতল ভূমির অন্তর্গত । তবে থালার মত নিম্ন এ অঞ্চলের মাটি শক্ত ও কাদাময়।পাবনা জেলার কৃষি নদী দ্বারা প্রভাবিত । পদ্মা ও যমুনা বেষ্টিত এই জেলার ভিতর দিয়ে ইছামতি,বড়াল,গোমানী,খালিসাডাঙ্গা,বাদাই,চিকনাই ও রত্নাই নদী প্রবাহিত । বছরের অধিকাংশ সময় ঐ সকল নদীর পানিতে বির্স্তীণ এলাকা নিমজ্জিত থাকতো । সেখানে শুষ্ক মৌসুমে কিছু রবি শস্য আর বর্ষা মৌসুমে পাট ও গভীর পানির বোনা আমন ধানের মত অনিশ্চিত আবাদের উপর নির্ভরশীল ছিল । এই প্রেক্ষাপটে পাবনা সেচ ও পল্লী উন্নয়ন প্রকল্প পাবনা জেলার কৃষিতে নূতন প্রানের সঞ্চার করেছে।সেখানে নিয়ন্ত্রিত সেচ সুবিধার মাধ্যমে উচ্চ ফলনশীল জাতের ফসলের আবাদ সমপ্রসারিত হওয়ায় এক সময়ের খাদ্য ঘাটতির পাবনা জেলা উদ্বৃত্ত খাদ্য ভান্ডারে পরিণত হয়েছে । খাদ্য উৎপাদনের সাথে সাথে জেলার বিশাল জনগোষ্ঠীর খাদ্য ও পুষ্টি চাহিদা বিবেচনায় নানাবিধ পরিকল্পনা গ্রহন করে কৃষিতে সমৃদ্ধি আনা সম্ভব হয়েছে ।

ডাল ফসল উৎপাদন: খাদ্য শস্যের পাশাপাশি ডাল উৎপাদনেও এ জেলা অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে। ডাল ফসলের উৎপাদন উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে ।

তেল ফসল উৎপাদন: তেল জাতীয় ফসল আবাদেও এ জেলা পিছিয়ে নেই । এর আবাদ এলাকা ও উৎপাদন ক্রমশ: বৃদ্ধি পাচ্ছে ।

মসলা ফসল উৎপাদন: মসলা ফসল উৎপাদনে পাবনা জেলা দেশের মধ্যে শীর্ষস্থানে রয়েছে।

ফল জাতীয় ফসল: ঈশ্বরদী,পাবনা সদর ও চাটমোহর উপজেলায় আম,লিচু,কাঠাল,কলা,পেপে,পেয়ারা ও লেবুর প্রচুর বাগান গড়ে উঠেছে । স্থানীয় চাহিদা মিটিয়েও রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করে জেলার ফলচাষীরা আর্থিকভাবে অনেক লাভবান হচ্ছেন।